Wednesday , October 23 2019
Home / bangladesh / 'ধারাবাহিক নাটক নির্মাণ অনেক কঠিন কাজ'

'ধারাবাহিক নাটক নির্মাণ অনেক কঠিন কাজ'



দর্শকপ্রিয় অভিনেতা রওনক হাসান এই প্রথম একটি ধারাবাহিক নাটক নির্মাণ করছেন. নাম 'বিবাহ হবে'. চলতি মাসেই বাংলাভিশনে এটি প্রচার শুরু হবে. এরইমধ্যে ধারাবাহিকটির দুটি লটের কাজ শেষ করেছেন তিনি. এই ধারাবাহিকে 47 জন তারকার উপস্থিতি থাকছে বলেও জানান রওনক. ধারাবাহিক নাটক নির্মাণের অভিজ্ঞতা জানতে চাইলে তিনি বলেন, এই ধারাবাহিকটি নির্মাণ না করলে জানা হতো না আমাদের নির্মাতারা কতটা অসহায়. ধারাবাহিক নাটক নির্মাণ অনেক কঠিন কাজ. বাজেট সমস্যা থেকে শুরু করে কত কিছু একজন নির্মাতাকে দেখতে হয়. এদিকে এই অভিনেতার হাতে আরো চারটি ধারাবাহিক রয়েছে. এগুলো হলো তোফায়েল সরকারের 'গুড্ডু বুড়া', বিপ্লব হায়দারের 'পরী দ্যা বিউটিফুল', জুয়েল মাহমুদের 'দি পাবলিক' ও মীর সাব্বিরের 'নোয়াশাল'. এই অভিনেতা ক্যারিয়ারের প্রায় ২4 বছর পার করছেন. এই সময়ে অনেক কিছুর প্রত্যক্ষ সাক্ষী তিনি. দেখেছেন অনেক কিছুর পরিবর্তন. এই প্রয়োজন বলে মনে করেন? রওনক বলেন, নাটককে শিল্প ঘোষণা করা উচিত. প্রতিদিন এই অঙ্গনে অনেক টাকা বিনিয়োগ হচ্ছে. কিন্তু সেই তুলনায় এই অঙ্গনের মানুষগুলোকে মূল্যায়ন করা হচ্ছে না. এছাড়া আমাদের টিভি চ্যানেলগুলোর কিছু নিয়ম পরিবর্তন করতে হবে. দর্শক একটি নাটক দেখার সময় কখনো বিজ্ঞাপন আবার কখনো সংবাদ বিরতির কারণে মনোযোগ হারিয়ে ফেলে. স্যাটেলাইটের এই সময়ে তারা এখন কোনো নির্দিষ্ট টিভি চ্যানেলের পর্দায় স্থির নয়. যখন যে চ্যানেলের নাটক বা অনুষ্ঠান ভালো লাগে তখন সেই চ্যানেল দেখছেন তারা. এসব বিষয়ে বলতে গিয়ে আজকের আলাপনে রওনক ভারতীয় সিরিয়াল নিয়েও কথা বলেন. তার ভাষ্য, আমাদের দেশীয় নাটকের মতো ভারতীয় সিরিয়ালগুলোও ইউটিউবে পাওয়া যায়. তবু দর্শক টেলিভিশনেই সেই সব সিরিয়াল দেখছে. এর কারণ হলো ভারতীয় চ্যানেলগুলো সঠিক সময়ে সিরিয়াল প্রচার করে. এছাড়া তাদের সিরিয়াল প্রচারের সময় বিজ্ঞাপনের যন্ত্রণাও তেমন থাকে না. ফলে স্বাচ্ছন্দ্যে দর্শক তাদের সিরিয়ালগুলো দেখছে. তিনি আরো বলেন, আমাদের টিভি চ্যানেলগুলোর দর্শকদের নাটক দেখানোর ব্যাপারে সঠিক পরিকল্পনার অভাব আছে. দর্শক যদি ইউটিউবে নাটক দেখতে পারে তাহলে টিভি চ্যানেলে দেখতে সমস্যা কোথায়? Get Paused in Your Practice শুধু নাটক কিংবা বিনোদননির্ভর অনুষ্ঠান দেখার জন্য আমাদের আলাদা টিভি চ্যানেল প্রয়োজন বলে আমি মনে করি. টিভি নাটকের পাশাপাশি এই অভিনেতা চলচ্চিত্রেও অভিনয় করছেন. আগামী 15 ই ফেব্রুয়ারী তার অভিনীত 'ফাগুন হাওয়ায়' চলচ্চিত্রটি মুক্তি পাবে. এটি নির্মাণ করেছেন তৌকীর আহমেদ. ভাষা আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে এই ছবিটি নির্মাণ হয়েছে. এতে রওনকের চরিত্র কেমন? এই প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, এই ছবিতে দর্শক আমাকে নেতিবাচক চরিত্রে দেখবেন. আমি প্রথমবারের মতো চলচ্চিত্রে ভিলেন হিসেবে আসছি. এর বেশি কিছু বলতে চাই না. নতুন চলচ্চিত্রের বিষয়ে কথা হচ্ছে বলেও জানান এই অভিনেতা. আলাপনের শেষভাগে এই অভিনেতার নিজের সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, অভিনেতা হিসেবে আমি কেমন সেটি দর্শক and নির্মাতারা ভালো বলতে পারবেন. If you are not logged in, click here. আমার নিজের প্রতি আরো যত œ নেওয়া প্রয়োজন. কিন্তু সেটি আমি পারি না. If you are not logged in, you will need to use the Security Toolbar as well as if it is not compatible with your system, then it will continue to be installed on your computer. অর্থাৎ প্রথম কাজটি করতে গিয়ে যদি ভালো না লাগে পরবর্তিতে তার সঙ্গে আমি আর কাজ করি না.

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত


Source link